Home » পপুলার ডেস্টিনেশন » বিশ্বের সেরা ১০টি দ্বীপ শহর
ট্রোগির, ক্রোয়েশিয়া

বিশ্বের সেরা ১০টি দ্বীপ শহর

ট্রোগির, ক্রোয়েশিয়া

ট্রোগির, ক্রোয়েশিয়া

ভীষণ অশান্ত সময়ে বাস করা মানুষ সবসময়ই শান্তির খোঁজে থাকেন। ভ্রমণ দিতে পারে সেই শান্তি। পথ হারিয়েই পাওয়া যায় নতুন পথের খোঁজ। ঘুরতে যারা পছন্দ করেন তাঁরা সমুদ্র ভালোবাসেন অবশ্যই। আর সমুদ্র ভালোবাসলে দ্বীপ শহর আপনার পছন্দের জায়গাই হবে। চলুন জেনে নেওয়া যাক বিশ্বের অন্যতম সেরা ১০টি দ্বীপ শহরের টুকরো খবর।

১. ট্রোগির, ক্রোয়েশিয়া : বিকেলবেলা আরামসে নিরিবিলি হাঁটতে পারবেন পুরো শহরে। ঢেউয়ের মতো গায়ে লাগবে সমুদ্রের হাওয়া। ট্রোগিরের ছোট ছোট রাস্তা ও গলির রাজ্যে আপনি হয়তো হারিয়ে যেতে পারেন কিন্তু প্রকৃতির এত কাছাকাছি গিয়ে হারিয়ে যেতে খুব একটা খারাপ লাগবে না। পথে নামলে ট্রোগিরের মানুষের সাধারণ জীবন যাপন আপনাকে মুগ্ধ করবে। ভুলে যাবেন জীবনের অনেক যন্ত্রণা।

২. মোকাম্বিক, মোজাম্বিক : ইউনেস্কোর বিশ্ব ঐতিহ্য মোজাম্বিকের এই ছোট্ট সুন্দর শহরটি। কিন্তু এর রয়েছে বিশাল ইতিহাস। পর্তুগিজদের উপনিবেশ থাকার সময় পূর্ব আফ্রিকার রাজধানী ছিল মোকাম্বিক। সে সময়ের ছাপ এখনো লেগে আছে শহরে। সেই সাথে আছে ষোড়শ শতাব্দীর বেশকিছু বিহার।

৩. লুবেক, জার্মানি : মধ্যযুগের রাজধানী হিসেবে যে ঐতিহ্য ছিল শহরটির তা কিছুটা ম্লান হয়েছে বটে। কিন্তু এখনো আবেদন হারায়নি ট্রেভ নদীর তীরে গড়ে ওঠা এই শহর। যেন এক উজ্জ্বল সময়ের নীরব স্বাক্ষী।

৪. মালে, মালদ্বীপ : দ্বীপরাষ্ট্র মালদ্বীপের রাজধানী মালে। রাজধানী ঘিরেই পরিচালিত হয় পুরো দেশের ব্যবসাবাণিজ্য ও রাজনীতি। মানুষের চাপ বাড়ছে শহরটির ওপর। আর তাই গত ২০ বছরে এর জনসংখ্যা বেড়ে দ্বিগুণ হয়েছে। ব্যস্ততাই এই দ্বীপের সৌন্দর্য।

৫. কি ওয়েস্ট, ফ্লোরিডা : আমুদে ও খামখেয়ালি শহর ‘কি ওয়েস্ট’। ফুরফুরে মেজাজে ঘুরে বেড়ানোর স্বাধীনতা আছে এখানে। রূপকথায় শোনা রাজপ্রাসাদ যেমন রয়েছে তেমনি রয়েছে টিনের ছোট ছোট বাড়ি। শহরজুড়ে ছড়িয়ে ছিটিয়ে আছে পানশালা, লেখক আর্নেস্ট হেমিংওয়ের স্মৃতি বয়ে বেড়াচ্ছে এসব জায়গা।

৬. মেক্সিকালটাটান, মেক্সিকো : টালি দিয়ে তৈরি বাড়ির ছাদ। এ রকম সারি সারি বাড়ি দাঁড়িয়ে আছে শহরজুড়ে। বৃষ্টির দিনে পথের হদিস থাকে না, তখন নৌকা ভাসে শহরের রাজপথে। অপরূপ সৌন্দর্যের জন্য এই শহরকে বলা হয় মেক্সিকোর ভেনিস। একাদশ শতাব্দীতে আজটেকরা এই শহরের গোড়াপত্তন করেছিল বলে প্রচলিত রয়েছে। এখান থেকেই মেক্সিকান জাতিগোষ্ঠীর জন্ম।

৭. ট্রমসো, নরওয়ে : শহরের শেষ মাথায় উঁচু পাহাড়, মাঝখানে বিশাল বড় হ্রদ। আর চারপাশ ঘিরে রয়েছে নদী। উত্তরের প্যারিস বলা হয়ে থাকে নরওয়ের ট্রমসো শহরকে। কাঠের তৈরি অনেক পুরনো বাড়িঘর যেন শহরটার বয়স মনে করিয়ে দেয়।

৮. লিনদাউ, জার্মানি : কয়েক শতাব্দী পুরনো এই শহরের রাস্তাগুলোয় হাঁটতে হাঁটতে আকাশটাকে অনেক কাছের মনে হবে। সমুদ্রকে কেন্দ্র করে বন্দর গড়ে উঠেছে। ব্যবসায়িক ব্যস্ততার মাঝেও আশ্চর্য শান্ত একটা রূপ রয়েছে লিনদাউয়ের।

৯. সান্তা ক্রুজ দেল ইসলোত, কলোম্বিয়া : পৃথিবীর সবচেয়ে ঘনবসতিপূর্ণ দ্বীপ এটি। কিন্তু এই ভিড় শহরটিকে করে তুলেছে চঞ্চল। দ্বীপের আড়াই একর জায়গায় বাস করে এক হাজার ২০০ মানুষ। তবু সবসময় প্রাণবন্ত এই দ্বীপ।

১০. ফ্লোরিয়ানোপোলিস, ব্রাজিল : একটি দ্বীপেই ৪২টি সৈকত! আর রয়েছে বনভূমি। দক্ষিণ ব্রাজিলের ঘর হিসেবে পরিচিত এই শহরটিকে বলা হয় জাদুদ্বীপ।
সৌজন্যে : এনটিভি