Home » ফিচার » কালের সাক্ষী দুলাইয়ের জমিদার বাড়ী

কালের সাক্ষী দুলাইয়ের জমিদার বাড়ী

Dulai

সুজানগরের জমিদার আজিম চৌধুরী না থাকলেও আছে তার কর্মযজ্ঞের স্মৃতি ও নাম। প্রায় আড়াইশ’ বছর আগে উপজেলার দুলাই গ্রামে সম্ভ্রান্ত মুসলিম পরিবারে জন্ম নেন জমিদার আজিম চৌধুরী। তিনি ছিলেন সৌখিন এবং সৌন্দর্যের পূজারী জমিদার। আর তাইতো যখন এ দেশে একটি একতলা বিল্ডিং বা ভবন নির্মাণ করা ছিল কোন প্রত্যাশিত স্বপ্ন পূরণের মতো, ঠিক সে সময় জমিদার আজিম চৌধুরী দুলাই’র মতো নিভৃত পল্লীতে প্রতিষ্ঠিত তার বাড়িতে নির্মাণ করেন রাজপ্রাসাদতুল্য দ্বিতলবিশিষ্ট একাধিক দৃষ্টিনন্দন এবং বিলাসবহুল ভবন। অত্যাধুনিক ডিজাইনের ওই ভবনগুলো ছিল বহু দুয়ারী এবং বহু কক্ষের। এছাড়া ১২০ বিঘা জমির ওপর প্রতিষ্ঠিত ওই বাড়িটিতে ছিল ১১টি নিরাপত্তা গেট। প্রথম গেটে সর্বদা দণ্ডায়মান থাকতো বিশাল আকৃতির দু’টি হাতি।

হাতি দু’টি জমিদার বাড়ির নিরাপত্তা প্রহরীর কাজে ব্যবহার করা ছাড়াও জমিদার আজিম চৌধুরীর ভ্রমণ কাজে ব্যবহূত হতো। বাড়ির চারপাশ ঘিরে খনন করা হয়েছিল বিশাল নিরাপত্তা দীঘি। এছাড়া বাড়ির অভ্যন্তরে একটি মসজিদ, জমিদার দরবারে কর্মরত কর্মকর্তা-কর্মচারীদের গোসলের জন্য একটি বিশাল পুকুর এবং জমিদার পরিবারের বিবিদের গোসলের জন্য অন্দরমহলের অভ্যন্তরে খনন করা হয়েছিল আরও একটি দর্শনীয় পুকুর। সেইসাথে বাড়িটি ছিল প্রাকৃতিক সৌন্দর্যে ভরপুর। সূত্র : ইত্তেফাক