Home » এভিয়েশন » শিলাবৃষ্টিতে বিপর্যয় এড়ালো বিমান
বিমানের সামনের ক্ষতিগ্রস্ত অংশ। ছবি: এপি।

শিলাবৃষ্টিতে বিপর্যয় এড়ালো বিমান

তুবড়ে গিয়েছে নাক। ভেঙে গিয়েছে ককপিটের কাচ। তার পরেও কোনও মতে রক্ষা পেয়েছেন বিমানের ১৩০ জন যাত্রী।

বিমানের সামনের ক্ষতিগ্রস্ত অংশ। ছবি: এপি।

বিমানের সামনের ক্ষতিগ্রস্ত অংশ। ছবি: এপি।

দু’দিন আগে মাঝ আকাশে ভয়ানক শিলাবৃষ্টির কবলে পড়ে এমন দশাই হয়েছিল ডেল্টা এয়ারলাইন্সের ফ্লাইট ১৮৮৯-এর। ম্যাসাচুসেটসের বস্টন থেকে উটার সল্ট লেক সিটিগামী বিমানটি ডেনভারে জরুরি অবতরণ করিয়ে বিপর্যয় এড়িয়েছেন চালক। এয়ারবাস এ৩২০ যখন মাঝ আকাশে, তখনই হঠাৎ ভয়ঙ্কর দুর্যোগ শুরু হয়। শিলাবৃষ্টির মধ্যে বিমান উড়লেও শিলার আঘাতে বিমানের সামনের অংশ যথেষ্ট ক্ষতিগ্রস্ত হয়। ককপিটের কাচেও চিড় ধরে যায় শিলার আঘাতে। বিমানের সামনের দিকে ওই অংশে আবহাওয়া বোঝার এবং দিকনির্ণয়ের যন্ত্র রাখা থাকে।

বিপদ এড়াতে দু’মিনিটের মধ্যে ১৪ হাজার ফুট নীচে নেমে আসতে হয় বিমানটিকে। যাত্রীদের প্রত্যেকেই বলছেন, কোনও যাত্রায় এমন অভিজ্ঞতা হয়নি। বিমান থেকে নেমেও ভীতি কাটিয়ে অবাক চোখে তাঁরা দেখছিলেন বিমানটির সামনের দিকে কী দশা হয়েছে! বিমানের এক কর্মীও বলেছেন, গত ৩০ বছরে এমন দুর্যোগে পড়ার অভিজ্ঞতা নেই তাঁর। চালক হঠাৎ উচ্চতা কমানোর পরে যথেষ্ট দ্রুততার সঙ্গে ডেনভারে অবতরণ করেন। এক যাত্রীর কথায়, ‘‘আমায় ঘনঘন বিমানে যাতায়াত করতে হয়। ওই দশ মিনিট ছিল আমার জীবনের সব চেয়ে ভয়াবহ মুহূর্ত।’’ সূত্র : আনন্দবাজার পত্রিকা