Home » ডিটিসি ভ্রমণ বার্তা » নানা আয়োজনে বিশ্ব পর্যটন দিবস পালিত

নানা আয়োজনে বিশ্ব পর্যটন দিবস পালিত

‘শতকোটি পর্যটক শতকোটি সম্ভাবনা’- এই প্রতিপাদ্য নিয়ে গতকাল পালিত হয়েছে বিশ্ব পর্যটন দিবস। এ উপলক্ষে বর্ণাঢ্য র‌্যালির আয়োজন করে বাংলাদেশ ট্যুরিজম বোর্ড ও পর্যটন করপোরেশন। র‌্যালির আনুষ্ঠানিক উদ্বোধন করেন বেসামরিক বিমান পরিবহন ও পর্যটনমন্ত্রী রাশেদ খান মেনন।

প্রতিবছরের মতো এবারও বাংলাদেশ নানা আয়োজনের মধ্য দিয়ে দিবসটি পালন করছে। দেশব্যাপী বিভিন্ন সামাজিক ও সাংস্কৃতিক সংগঠন নানা কর্মসূচির আয়োজন করে। বেশ কয়েকটি সংগঠন রাজধানীতে শোভাযাত্রা, র‌্যালি, সাংস্কৃতিক অনুষ্ঠান এবং আলোচনা সভার আয়োজন করে।

Tourism-Rally

দিবসটি পালন উপলক্ষে গতকাল সকালে রাজধানীর মৎস্য ভবনের মোড় থেকে র‌্যালি শুরু হয়ে প্রেস ক্লাব, দোয়েল চত্বর হয়ে টিএসসি গিয়ে শেষ হয়। এতে বিভিন্ন পর্যটন সংগঠন ছাড়াও ঢাকা বিশ্ববিদ্যালয়ের ট্যুরিস্ট সোসাইটি, পর্যটক ও ট্যুরিস্ট পুলিশের সদস্যরা অংশ নেন। পরে টিএসসি চত্বরে সংক্ষিপ্ত বক্ততায় পর্যটনমন্ত্রী শতকোটি পর্যটক শতকোটি বৈশ্বিক প্রতিনিধি হতে পারে বলে মন্তব্য করেন। এ সময় উপস্থিত ছিলেন বেসামরিক বিমান পরিবহন ও পর্যটন মন্ত্রণালয় সংক্রান্ত সংসদীয় স্থায়ী কমিটির সভাপতি ফারুক খান এমপি, বাংলাদেশ পর্যটন করপোরেশনের চেয়ারম্যান অপরূপ চৌধুরী, বাংলাদেশ ট্যুরিজম বোর্ডের প্রধান নির্বাহী আখতারুজজামান খান কবীর প্রমুখ।

দিবসটি উপলক্ষে হাতির ঝিলে ট্যুরিস্ট পুলিশ, বাংলাদেশ পর্যটন করপোরেশন এবং বাংলাদেশ রোয়িং ফেডারেশনের সহায়তায় বাংলাদেশ ট্যুরিজম বোর্ড নৌকা বাইচের আয়োজন করে। নৌকা বাইচের উদ্বোধন করেন বেসামরিক বিমান পরিবহন ও পর্যটনমন্ত্রী রাশেদ খান মেনন।

বিশ্ব পর্যটন দিবস উপলক্ষে সবাইকে শুভেচ্ছা জানিয়েছেন রাষ্ট্রপতি মো. আবদুল হামিদ। এক বাণীতে তিনি বলেন, পর্যটন বিশ্বের বিকাশে বৈশ্বিক প্রেক্ষাপট বিবেচনা করে যুগোপযোগী আইন-নীতিমালা প্রণয়ন, হালনাগাদকরণ ও বাস্তবায়ন একান্ত আবশ্যক।
আন্তর্জাতিক পর্যটন দিবসের প্রধান উদ্দেশ্য-বিশ্বে বিভিন্ন দেশের ভ্রমণকারীদের সঙ্গে পর্যটনকেন্দ্রের সেতুবন্ধন গড়ে তোলা। এ ছাড়া পর্যটনের ভূমিকা সম্পর্কে জনসচেতনতা বৃদ্ধিসহ সামাজিক, সাংস্কৃতিক, রাজনৈতিক এবং অর্থনৈতিক উপযোগিতাকে বিশ্বব্যাপী ছড়িয়ে দেওয়া এ দিবসের লক্ষ্য। ১৯৭০ সালের ২৭ সেপ্টেম্বর সংস্থাটির বার্ষিক সম্মেলনে এর নাম, লক্ষ্য, উদ্দেশ্য পুনর্মূল্যায়ন করা হয়। তখন থেকে এর নাম বিশ্ব পর্যটন সংস্থা করার বিষয়ে সদস্যদের মধ্যে ঐকমত্য প্রতিষ্ঠিত হয়। নতুন নামে ১৯৭৪ সাল থেকে কার্যক্রম শুরু করে সংস্থাটি। ১৯৮০ সালের বার্ষিক সম্মেলনে এই সংস্থা গঠন হওয়ার দিবসে অর্থাৎ ২৭ সেপ্টেম্বর বিশ্বব্যাপী পর্যটন দিবস পালনের বিষয়ে ঐকমত্য প্রতিষ্ঠিত হয়।