Home » ফিচার » অরিগনের হারানো হ্রদ

অরিগনের হারানো হ্রদ

ফাহমিদা হক
আমেরিকার অরিগন রাজ্যে পাহাড়ঘেরা এক বনের ভেতর লুকিয়ে আছে আজব এক হ্রদ। উইলামেট ন্যাশনাল ফরেস্ট এলাকায় অবস্থিত হ্রদটি প্রতিবছর একবার হারিয়ে যায়, তা-ও আবার হ্রদের ভেতরে থাকা এক গর্তের মধ্যে !

Origon

‘লস্ট লেক’ বা হারিয়ে যাওয়া হ্রদ নামে পরিচিত লেকটি এ অদ্ভুত বৈশিষ্ট্যের কারণে অনেক বছর ধরেই সাধারণ মানুষ আর গবেষকদের আগ্রহের বিষয়। এমন আজব বৈশিষ্ট্যের কারণ মূলত এর গঠন। প্রায় ৩০০০ বছর আগে স্যান্ড মাউনটেন লাইনের আগ্নেয়গিরি থেকে গড়ানো লাভা জমে এক নদীর পথ আটকালে এ হ্রদ তৈরি হয়। এর পর থেকে প্রায় প্রতিবছরই শরতের সময় আশপাশের জলাধার থেকে পানি এসে হ্রদটা ভরিয়ে তোলে। কিন্তু বিপত্তি বাধে বসন্ত পেরিয়ে গ্রীষ্ম এলে। সে সময় লেকের তলায় থাকা বড় এক গর্ত বেয়ে এর পানি চলে যেতে থাকে। দেখতে দেখতে পানিতে ভরা লেকটা একেবারে যেন শুকিয়ে যায়।

গবেষকদের মতে, লেকের তলায় থাকা এ গর্ত এক লাভা টিউবের সঙ্গে যুক্ত, যার মধ্য দিয়ে একসময় গরম লাভা বয়ে যেত। এদিকে লেকের মাটিজুড়ে আছে ছিদ্রযুক্ত পাথর। যখন বৃষ্টির পানি অনেক বেশি জমা হয়, তখন লেকের ওপরটা পানিতে ভরে যায়। সে সময় হ্রদে পানির গভীরতা ৯ ফুটে গিয়ে ঠেকে। কিন্তু গরমের সময় পানির গভীরতা কম থাকে। সেই সঙ্গে লেকের নিচে থাকা গর্ত আর ছোট-বড় ছিদ্র বেয়ে পুরো লেকের পানি নিচে নেমে যেতে থাকে। এভাবে নামতে নামতে একসময় পানিতে ভরপুর লেক হয়ে ওঠে একেবারেই শুকনো-খটখটে। সৌজন্যে : কালের কণ্ঠ