Home » ডিটিসি ভ্রমণ বার্তা » টোয়াবের পর্যটন মেলা ১৯-২১ নভেম্বর

টোয়াবের পর্যটন মেলা ১৯-২১ নভেম্বর

বাংলাদেশে দুই বিদেশি নাগরিক খুনের পর পিছিয়ে গেল ‘বাংলাদেশ ট্রাভেল অ্যান্ড ট্যুরিজম ফেয়ার ২০১৫’। আজ বৃহস্পতিবার ঢাকা রিপোর্টাস ইউনিটিতে এক সংবাদ সম্মেলনে আয়োজকরা এ তথ্য জানান।

Travel-Fait

সংবাদ সম্মেলনে জানানো হয়, ট্যুর অপারেটর অ্যাসোসিয়েশন অব বাংলাদেশ (টোয়াব)- এর অয়োজনে ১৫ থেকে ১৭ অক্টোবর বসুন্ধরায় ইন্টারন্যাশনাল কনভেনশন সিটিতে এই মেলার আয়োজনের ঘোষণা করা হয়েছিল। কিন্তু সম্প্রতি দুজন বিদেশি নাগরিকের হত্যাকাণ্ডের মত একটি ঘৃণিত কাজের পরিপ্রেক্ষিতে উদ্ভুত পরিস্থিতিতে ট্যুরিজম শিল্প সাময়িকভাবে ব্যাপক সঙ্কটাপন্ন অবস্থায় পড়েছে। এর ফলে মেলায় অংশ গ্রহণে ইচ্ছুক বেশ কিছু বিদেশি প্রতিষ্ঠান, ডেলিগেটস এবং ট্যুরিস্ট গ্রুপ ইতোমধ্যে তাদের বাংলাদেশ সফর স্থগিত করেছে। এজন্য মেলার পূর্বঘোষিত তারিখ পরিবর্তন করে একই ভেন্যুতে আগামী ১৯-২১ নভেম্বর নির্ধারণ করা হয়েছে।

ট্যুর অপারেটস অ্যসোসিয়েশন অব বাংলাদেশ এবং প্রিয়ন্তী এডিট অ্যান্ড ইফেক্টস যৌথভাবে এ সংবাদ সম্মেলনের আয়োজন করে।

মেলায় আয়োজনের সময় বাড়ানোর ফলে মেলার পরিসর আরো বাড়বে-এমন আশাবাদ ব্যক্ত করে বক্তারা বলেন, এতে দেশীয় প্রতিষ্ঠানের অংশগ্রহণের পাশাপাশি বিদেশি অনেক ট্যুরিজম অথরিটি, ট্যুর অপারেটর এবং বিদেশি সাংস্কৃতিক প্রতিনিধি দলের অংশ নেয়ার কথা রয়েছে।

মেলায় শীর্ষস্থানীয় সকল দেশি-বিদেশি ট্যুর অপারেটর, ট্রাভেল এজেন্ট, বিমান সংস্থা, স্থানীয় ও আন্তর্জাতিক হোটেল, রিসোর্ট, ব্যাংক ও শিক্ষা প্রতিষ্ঠানসহ পর্যটন সংশ্লিষ্ট বিভিন্ন প্রতিষ্ঠান অংশগ্রহণ করবে বলেও জানানো হয়।

সংবাদ সম্মেলনে উপস্থিত ছিলেন টোয়াব-এর ভারপ্রাপ্ত সভাপতি রাফেউজ্জামান, সহ সভাপতি এস এম হাফিজুর রহমান, পরিচালক (বাণিজ্য ও মেলা) ফাইজুল ইসলাম, উপদেষ্টা শিবলুল আজম প্রমুখ।