Home » রকমারি » তারকাদের নিজের আকাশ

তারকাদের নিজের আকাশ

সামিউল ইসলাম শোভন
বড়লোকের কারবার আর কাকে বলে! বিমান চলবে আকাশে, সঙ্গে আপনিও। আর যাই বলুন, বিমানে চড়ার খরচ কিন্তু একদমই কম নয়। তাই শখে আর যাই করা যাক, কথায় কথায় বিমানে চড়া যায় না। কিন্তু এমন অনেকেই রয়েছেন, যারা আস্ত একটা বিমান নিজেই কিনে রেখেছেন! বিশেষ করে তারকা ও খেলোয়াড়দের মধ্যে বিমান কেনার আগ্রহটি বেশ প্রবল। ভক্তরাও এর জোরে এগিয়ে রাখেন তাদেরকে। এমন কয়েকজনের কথাই জানবো আজ, যাদের ব্যক্তিগত বিমান রয়েছে—

Taroka

টম ক্রুজ
হলিউড তারকা
মুভিতে বিমানে উঠে প্রায়ই বিপদজনক কসরত করতে দেখা যায় হলিউড অ্যাকশন তারকা টম ক্রুজকে। কিন্তু টপ গান, মিশন ইম্পসিবলের জনপ্রিয় এই তারকা ব্যক্তিগত জীবনেও বিমানের প্রতি অনেক আগ্রহী। বিশ্বসেরা যেসব তারকারদের নিজস্ব বিমান রয়েছে, সেই তালিকায় টম ক্রুজও একজন। মূলত, বিখ্যাত ছবি ‘টপ গান’-এ ক্রুজ একজন নেভাল জেট পাইলটের ভূমিকায় অভিনয় করেন। এরপর থেকেই বিমানের প্রতি আকৃষ্ট হন তিনি। তখন থেকেই ব্যক্তিগত বিমান কেনার ব্যাপারে আগ্রহী হয়ে ওঠেন। এখন দারুণ একটি গালফস্ট্রিম জি-৪ জেটের মালিক তিনি। ১৯ জন যাত্রী বহন করতে সক্ষম বিমানটি দুটি রোলস রয়েস ৬১১-৮ ইঞ্জিনধারী। ৬৭৫ মাইল বেগে চলতে সক্ষম বিমানটির প্রত্যেক যাত্রীর জন্য আলাদা আলাদা মনিটর রয়েছে। এছাড়া আধুনিক আসন ব্যবস্থার পাশাপাশি জেট বিমানটিতে রয়েছে মিটিং এবং শোবার ঘরের ব্যবস্থা। সর্বোচ্চ ৪৫,০০০ ফুট ওপরে উড়তে পারে বিমানটি। তবে মজার বিষয় হলো, ছবিতে বিভিন্ন সময় তাকে বিমান চালাতে দেখা যায়। কিন্তু বাস্তব জীবনে বিমান চালনার কোনো অভিজ্ঞতা তার নেই।

বিল গেটস
মাইক্রোসফটের প্রতিষ্ঠাতা
মাইক্রোফটের প্রতিষ্ঠাতা বিল গেটস বিশ্বের সবচেয়ে ধনী ব্যক্তি। স্বাভাবিকভাবেই নিজস্ব বিমান থাকার কথা তার। তবে মাইক্রোসফটের কাজ ছেড়েছেন অনেক আগেই। পুরো পৃথিবীজুড়ে এখন মানব সেবায় ব্যস্ত তিনি। বিশেষ করে অনুন্নত দেশগুলোতে শিক্ষা ও স্বাস্থ্য সচেতনতার জন্য অর্থ খরচ করে চলছেন দু’হাতে। নিজের বিমানে করেই এসব জায়গায় চষে বেড়ান গেটস। বিখ্যাত বোম্বারডিয়ার বিডি-৭০০ গ্লোবার এক্সপ্রেস বিমানের মালিক তিনি। শব্দের গতিতে চলতে পারে বিমানটি! একই সঙ্গে বিমানের সর্বশেষ প্রযুক্তি থাকার কারণে এই বিমানের নিয়ন্ত্রণ কাঠামো বিশ্বখ্যাত। তবে বিমানের চেয়ে বিল গেটসের বেশি আগ্রহ রেসিং কারের ওপর। তার সংগ্রহে রয়েছে পোর্শে ৯৩০ টার্বো, মার্সিডিজ, জাগুয়ার এঙেজ ৬, ক্যারেরা ক্যাব্রিওলেট ৯৬৪ এবং ফেরারি ৩৪৮। মাইক্রোসফটের প্রথম যুগে পোর্শে ৯১১ দিয়ে মরুভূমিতে রেস করতেন বিল গেটস। এ জন্য তাকে একবার জেলেও যেতে হয়েছে।

বিয়োন্সে
সঙ্গীত শিল্পী
বিয়োন্স এবং যেইজ দু’জনই এই সময়ের ধনী এবং অবশ্যই প্রভাবশালী সঙ্গীতশিল্পী। ২০০৮ সালে ৪ বছরের প্রেমকে তারা বিয়েতে রূপ দেন। বিয়োন্সের চেয়ে নাম খ্যাতিতে যেইজ একটু পিছিয়ে থাকলেও কি হবে, বিয়োন্স কিন্তু ঠিকই তার স্বামীকে অনেক বেশি ভালোবাসেন। আর এই ভালোবাসার প্রমাণ স্বরূপ তার স্বামীকে উপহার হিসেবে দিয়ে দিলেন একটি আস্ত বিমান! আড়াইশ’ কোটি টাকা মূল্যের বিমানটির নাম বোম্বারডিয়ার চ্যালেঞ্জার ৮৫০। মূলত ব্যবসায়ীদের জন্য নির্মিত এই বিমানের সর্বোচ্চ গতি ৮১৯ কি. মি/ঘণ্টা এবং সর্বোচ্চ ৪১,১১০ ফুট উচ্চতায় উঠতে পারে। ১৫-১৯ জন যাত্রী বহনকারী এই বিমানটিতে রয়েছে একটি বেডরুম, দুটি বাথরুম এবং একটি রান্নাঘর। বিমানের ভেতরের সব ফার্নিচার ক্রিম কালারের। এ প্রসঙ্গে বিয়োন্সেকে জিজ্ঞেস করলে অনেকটা হেসেই বলে ‘যেইজের ক্রিম খুব প্রিয়।’

ওপরাহ ওইনফ্রে
উপস্থাপিকা ও অভিনেত্রী
দ্য ওপরাহ ওইনফ্রে শো, আমেরিকার টেলিভিশন ইতিহাসের সর্বোচ্চ রেটিংয়ের টিভি শো। শুধুই কি আমেরিকা! পৃথিবীর প্রায় সব দেশেই কম-বেশি এই শো’টি জনপ্রিয় হয়েছে। এই টিভি শো’য়ের উপস্থাপিকা এবং ‘কুইন অফ অল মিডিয়া’ খ্যাত ওপরাহ ওইনফ্রে দারুণ একটি কাস্টম মেইড বোম্বারডিয়ার-এর মালিক। বিংশ শতাব্দির সবচেয়ে ধনী আফ্রিকান-আমেরিকানের কাছে কাস্টম মেইড বোম্বারডিয়ার থাকবে এটাই কি স্বাভাবিক নয়!

১০ জন ধারণ ক্ষমতা সম্পন্ন বিমানটিতে রয়েছে টুইন রোলস-রয়েস বিআর ৭১০ ইঞ্জিন। বোম্বারডিয়ার বিমানটি পৃথিবীর অন্যতম একটি বিলাসবহুল বিমান। যার বাজার মূল্য প্রায় তিনশ’ কোটি টাকা। সর্বোচ্চ গতি ৯০০ কি.মি প্রতিঘণ্টা এবং ৫১,০০০ ফুট ওপরে উঠতে সক্ষম। বিমানটিতে একটি বেডরুম ও বাথরুম ছাড়াও একটি বার রয়েছে।

নেইমার জুনিয়র
ফুটবলার
ব্রাজিলের ‘বিস্ময়বালক’ ও বার্সেলোনা তারকা ফুটবলার নেইমারের শৌখিনতার ব্যাপারে কারোর অজানা নেই। ক্লাব ফুটবলের দরুণ অর্থের অভাবও নেই তার। গত বছর নিজের বান্ধবীকে আনার জন্য ব্যক্তিগত বিমান পাঠান তিনি। ১০ মিলিয়ন ডলারের বিমানটি ফুটবলসংক্রান্ত কাজে ও নিজের বিদেশ ভ্রমণে ব্যবহার করে থাকেন ব্রাজিল দলের এই অধিনায়ক। গত বছর কোপা আমেরিকা টুর্নামেন্ট থেকে ভেগাসে ঘুরতে যান নিজের বিমানে চড়ে। কথা ছিল, স্পন্সরশীপের চুক্তি অনুযায়ী জাপান যাবেন। ছিলেন একাই। কি আর করবেন, সার্বিয়ান মডেল বান্ধবী সোরায়াকে আনতে পাঠিয়ে দিলেন বিমানটি! দু’জন একসঙ্গে যাবেন, এমনটাই উদ্দেশ্য তার। এ নিয়ে গণমাধ্যমেও প্রকাশ হয় মুখরোচক সব খবর। শুধু নেইমারই নন, ফুটবলারদের মধ্যে বিমান রয়েছে সাবেক ইংলিশ অধিনায়ক ডেভিড বেকহ্যামেরও। শোনা যায়, একবার বন্ধু ও অভিনেতা টম ক্রুজ নিজের বিমানটি একদিনের জন্য ধার দিয়েছিলেন এই ফুটবলারকে। সেই সফরটি কোনোভাবে চালিয়ে নেওয়ার পরই নিজে বিমান কেনেন বেকহ্যাম। সৌজন্যে : ইত্তেফাক