Home » রকমারি » ঠিকানা এক লাইনের, তবু পৌঁছায় ৯৪ হাজার চিঠি!

ঠিকানা এক লাইনের, তবু পৌঁছায় ৯৪ হাজার চিঠি!

Prodipহাতে লেখা চিঠি। তার যেন আলাদা একটা গন্ধ থাকে, একটা স্পর্শ থাকে, তার গায়ে যেন লেগে থাকে ভালোবাসার ছোঁয়া। আজকের ই-যুগে প্রায় বিলুপ্ত হতে বসা এই প্রজাতির জন্যে মাঝে মধ্যে মন কেঁদে উঠলেও, আমাদের মধ্যে কতজন প্রয়োজনে বা অপ্রয়োজনে কাউকে চিঠি পাঠাই বলুন তো! মাসে না হোক, বছরে অন্তত একটা চিঠি কি লেখেন? এর উত্তরও বোধহয় বেশিরভাগ ক্ষেত্রেই হয় ‘না’। তবে এদেশেই এমন এক মানুষ আছেন, যিনি আজও ভরসা করেন হাতে লেখা চিঠির উপরেই। পোস্টকার্ড ম্যান বলেই তিনি বিখ্যাত। অবশ্য তার একটি পোশাকি নামও আছে… প্রদীপ লোখান্ডে।

পুনের এই সমাজকর্মী এখনও পর্যন্ত ৯৪ হাজারেরও বেশি হাতে লেখা চিঠি পেয়েছেন সেই সব মানুষের কাছ থেকে; যাদের জীবনে তিনি কোনও না কোনওভাবে সাহায্য করেছেন। ভারতের ১০টি রাজ্যের প্রায় ৪৯ হাজার গ্রামের সব তথ্য তার নখদর্পণে। হবে নাই বা কেন, এই সব জায়গার প্রায় ৫৮ লাখ মানুষের সঙ্গে তো তার নিয়মিত যোগাযোগ এই চিঠির মাধ্যমেই।

প্রতিদিন প্রদীপ গড়ে প্রায় ১৫০টি করে হাতে লেখা চিঠি পান দেশের বিভিন্ন প্রান্ত থেকে। আর সব থেকে আশ্চর্যের ব্যাপার হল, তার ঠিকানা মাত্র এক লাইনের—প্রদীপ লোখান্ডে, পুনে ৪১১০১৩। তাকে চিঠি পাঠাতে চাইলে এইটুকু ঠিকানা জানলেই হবে। মহারাষ্ট্রের বিভিন্ন গ্রামে এখনও পর্যন্ত সব মিলিয়ে ৩০৫৫টি লাইব্রেরি খুলেছেন প্রদীপ। সেখানকার বাচ্চাদের পড়াশোনার কথা মাথায় রেখেই এই কাজ তার। আর পোস্টকার্ডও তিনি নেন এদের থেকেই। পোস্টকার্ডের প্রতি তার টান এতটাই বেশি যে, মেয়ের বিয়ের নিমন্ত্রণপত্রও তিনি ছাপিয়েছিলেন পোস্ট কার্ডেই। সৌজন্যে : এই সময়