Home » বাছাইকৃত » সাধ্যের মধ্যেই আকাশে ভেসে ভেসে সমুদ্র ছোঁয়া

সাধ্যের মধ্যেই আকাশে ভেসে ভেসে সমুদ্র ছোঁয়া

:: আফসানা সুমী আফসানা সুমী ::

শীত এসেছে। সাথে যেন খুলে গেছে ভ্রমণের দুয়ার দিকে দিকে। সমুদ্র এখন শান্ত। সমুদ্রে অবগাহন যেমন মনকে আনন্দ দেয়, তেমনি শান্ত সমুদ্রের ওপর পাখির মতো উড়ে বেড়াতেও অগাধ আনন্দ। সমুদ্রের আকাশে ডানা মেলবার বিষয়টি বেশিরভাগ বাংলাদেশির জন্য একসময় শুধু স্বপ্ন থাকলেও এখন কিন্তু তা আর অধরা কিছু নয়! আমাদের প্রিয় সৈকত কক্সবাজারেই আছে প্যারাসেইলিংয়ের ব্যবস্থা।

সমুদ্র মানেই তো বিশালতা। সেই বিশাল জলরাশির বুকে শূন্যে ভেসে বেড়ানোর অভিজ্ঞতার তুলনা হয় না কোনোকিছুর সাথেই। পাখির চোখে যেন সমগ্র বিশ্বকে দেখা। কয়েক মুহুর্তের জন্য উপভোগ করা নিজের মাঝে অপূর্ব এক স্বাধীন শক্তিকে। জীবনের মানে বদলে দিতে এই কয়েক মুহুর্তই যথেষ্ট। জীবনের হিসেবগুলো বদলে দিতে এমন একছত্র স্বাধীন সময়েরই যেন অপেক্ষা ছিল!

অবসর পেলেই বেড়িয়ে পড়তে পারেন কক্সবাজারেরে উদ্দেশে। সৈকত জুড়ে এই সময় থাকবে  আমেজ। বছর  সময়টা যেহেতু ভিড়ের, তাই আগে থেকে যোগাযোগ করে যাওয়াই ভালো হবে।

প্যারাসেইলিংয়ের জন্য পর্যাপ্ত বাতাসের প্রবাহ থাকা জরুরি। বাতাস কম থাকলে আপনাকে অপেক্ষা করতে হতে পারে। হাতে একটু সময় নিয়ে যান। প্যারাসেইলিং সমুদ্রেই হয়, সুতরাং অপেক্ষার প্রহর খুব একটা একঘেয়ে হবে না আশা করি। ফেনিল উত্তাল জলরাশির সাথে কেটে যাবে দিব্যি।

কোথায় যাবেন:

কক্সবাজার কলাতলি বিচ থেকে যেতে হবে প্যারাসেইলিং পয়েন্টে। দুইটি স্পটে আপনি প্যারাসেইলিংয়ের যাবতীয় ব্যবস্থা পাবেন। সালসা বিচ ও দরিয়ানগর বিচ। লোকাল অটোতে যেতে পারবেন এখানে।

সময়: সাধারণত সকাল ৯টা থেকে বিকেল ৫টা পর্যন্ত।

খরচ: ৩টি প্যাকেজ আছে-

১। ১৫০০ টাকা- আকাশে ভেসে বেড়ানো কয়েক মিনিট।

২। ২০০০ টাকা- আকাশে ভেসে বেড়ানো সাথে ভাসমান অবস্থা থেকে ধীরে ধীরে সমুদ্রে পা ছুঁইয়ে আবার ভেসে ওঠার সুযোগ।

৩। ২৫০০ টাকা- সমুদ্রের কিছুটা গভীরে প্যারাসেইলিং এবং পানিতে পা ছুঁয়ে আবার আকাশে ডানা মেলা। সময় তুলনামূলক বেশি।

নিরাপত্তা:

কক্সবাজারে প্যারাসেইলিং সম্পূর্ণ নিরাপদ। এখন পর্যন্ত কোনো দুর্ঘটনার খবর পাওয়া যায়নি। প্যারাসুট অভিযাত্রীর শরীরে বেঁধে দেওয়ার আগেই তাকে যাবতীয় নির্দেশনা দিয়ে দেওয়া হয়। ভালোমতো বুঝিয়ে দেওয়া হয় নিয়মগুলো। প্রতিকূল আবহাওয়ায় প্যারাসেইলিং বন্ধ রাখা হয়। তবে নিজ দায়িত্বে একবার গিয়ারগুলো দেখে নেবেন। সাবধান থাকা ভালো।

আপনি যে প্যাকেজই গ্রহণ করুন না কেন, কিছু সময়ের জন্য যেন চলে যাবেন অন্য গ্রহে। সেখানে শুধু সাগর, পাহাড়, আকাশ আর আপনি সত্যি। বাকি সব মিথ্যা। সৌজন্যে : প্রিয়.কম