Home » এন্টারটেইনমেন্ট » ‘কথার ভুল আর করতে চাই না’

‘কথার ভুল আর করতে চাই না’

বিশিষ্ট কণ্ঠশিল্পী ফাহমিদা নবীর জন্মদিন ছিল ৪ জানুয়ারি। তিনি বর্তমানে ব্যস্ত রয়েছেন বাবা বরেণ্য সংগীতশিল্পী মাহমুদুন্নবীর গাওয়া গানগুলো নিয়ে একটি অ্যালবাম রেকর্ডিঙয়ের কাজে। বাবার শ্রোতাপ্রিয় কিছু গান নতুন করে গাইছেন দুই বোন ফাহমিদা নবী ও সামিনা চৌধুরী। জন্মদিনের দুপুরে ফাহমিদা নবী কথা বলেন জাহিদ আকবর‘র সঙ্গে

দ্য ডেইলি স্টার অনলাইন: আপনার জন্মদিনে জানতে চাই গত বছরের কোন ভুলটি আর করতে চান না?

ফাহমিদা নবী: কথার ভুলটি আর করতে চাই না। গত বছর এমন কথার ভুল করেছিলাম। আমি হয়তো অন্যরকমভাবে কথাটি বলেছি। যাকে বলেছি তিনি অন্যরকম মানে করেছেন। এ ধরণের কথার ভুল নতুন বছরে আর করতে চাইনা।

দ্য ডেইলি স্টার অনলাইন: জন্মদিনটি কীভাবে শুরু হলো?

ফাহমিদা নবী: বছরের শুরুতে যেহেতু আমার জন্মদিন তাই শুভেচ্ছা দিয়ে পথ চলা শুরু হয়। অনেক মানুষের ভালোবাসা পাই। এবার তিনটি ব্যাংক থেকে জন্মদিনের শুভেচ্ছা আর কেক পাঠিয়েছে। বিষয়টি আমার খুব ভালো লেগেছে। আমাকে ও আমার গান নিয়ে আলোচনা হয়েছে।

দ্য ডেইলি স্টার অনলাইন: নতুন বছরের স্বপ্ন বা কী কী ইচ্ছে রয়েছে আপনার?

ফাহমিদা নবী: প্রতি বছরের শুরুতে আমার একটি নতুন স্বপ্ন, ইচ্ছে ও মনন তৈরি হয়। আশাটিকে একটু কমাতে চাই। খুব বেশি আশা করতে চাই না এই বছরে। এক জীবনে সবাইকে খুশি করা সম্ভব না। কিছু কিছু সময় নীরব থাকতে হয়। আমার মনে হয়েছে এবার নীরব থাকবো। খুব বেশি সরব হবো না।

দ্য ডেইলি স্টার অনলাইন: জন্মদিনে বিশেষ কিছু বলবেন কি?

ফাহমিদা নবী: গত তিরিশ বছর ধরে কেউ একজন আমাকে জন্মদিনের শুভেচ্ছা পাঠাচ্ছেন। আমাকে নিয়ে গান লিখে পাঠাচ্ছেন। এবারেও এর ব্যতিক্রম হয়নি। এবারো আমাকে নিয়ে তিনি গান লিখেছেন। অথচ আমি তাঁকে চিনি না। এটি আমার জন্য ভীষণ ভালোলাগার একটি ঘটনা।

দ্য ডেইলি স্টার অনলাইন: গান ছাড়া আর কিসের প্রতি আপনার দুর্বলতা রয়েছে?

ফাহমিদা নবী: গান ছাড়া গাছের প্রতি ভীষণ দুর্বলতা রয়েছে আমার। এছাড়াও, লেখালেখি করি। রান্না করতে পছন্দ করি। ফুল, সমুদ্র, আকাশ দেখলে মাথা খারাপ হয়ে যায় আর কী! সৌজন্যে : দ্য ডেইলি স্টার