Home » কালচারাল ট্যুরিজম » বাংলাদেশের বিশ্বনন্দিত কিছু ছবি

বাংলাদেশের বিশ্বনন্দিত কিছু ছবি

বাংলাদেশের তরুণ আলোকচিত্রী তানভীর হাসান রোহান৷ব্যবসার ফাঁকে ছবি তোলা তার নেশা৷ এ পর্যন্ত অর্জন করেছেন তিন শতাধিক আন্তর্জাতিক পুরস্কার৷ রোহানের বিশ্বজয় করা কিছু আলোকচিত্র ৷

প্লেইং ইন ডাস্টি ডাস্ক
এক পড়ন্ত বিকেলে ঢাকার পাশের এক মাদ্রাসার শিক্ষার্থীরা ফুটবল খেলছিল কোনা এক বালুমহালে৷ তাদের খেলার বেশকিছু ছবি তোলেন আলোকচিত্রী৷ তবে সন্ধ্যার আগে খেলা শেষে আকাশে বালু উড়িয়ে আনন্দ করছিল তারা৷ ২০১৬ সালের সনি ওয়ার্ল্ড ফটোগ্রাফি অ্যাওয়ার্ডসহ বেশ কিছু আন্তর্জাতিক পুরস্কার জেতে ছবিটি৷

ফান বাথ


গ্রীষ্মের তপ্ত দুপুরে ঢাকার এক নির্মাণাধীন উড়াল সেতুর নিচের পরিত্যক্ত জলাশয়ে আনন্দে মেতে ছিল শিশুরা৷ ২০১৪ সালের কোনো একদিন চলার পথে সে দৃশ্য ক্যামেরাবন্দি করেন রোহান৷ এ ছবিটি ২০১৭ সালের ম্যাগনাম ফটোগ্রাফি অ্যাওয়ার্ডের ‘স্পেশাল জুড়ি ডিসটিঙ্কশন’সহ বেশ কিছু আন্তর্জাতিক পুরস্কার পেয়েছে৷

স্যান্ড পোর্টার


মুন্সিগঞ্জের শীতলক্ষ্যা নদীর ঘাটে বালু শ্রমিকের এই ছবিটি রোহানের ক্যামেরায় ধরা পড়ে ২০১৬ সালে৷ পরের বছর ন্যাশনাল জিওগ্রাফিক ট্র্যাভেল ফটোগ্রাফার অব দ্য ইয়ার-এ পিপলস চয়েজ অ্যাওয়ার্ড জেতে ছবিটি৷

নদী পার হওয়া


শীতে শুকিয়ে যাওয়া বড়াল নদী, তলানিতে জমেছে শ্যাওলা৷ সেখান থেকে নৌকা নিয়ে যাচ্ছিলেন একজন৷ নাটোরের বড়াই গ্রাম থেকে ছবিটি ক্যামেরাবন্দী করা হয় ২০১৭ সালে৷ এবছরই যুক্তরাষ্ট্রের ইন্টারন্যাশনাল ফটো অ্যাওয়ার্ড-এ তৃতীয় স্থান অর্জন করে ছবিটি৷

জব্বারের বলি খেলা


চট্টগ্রামের ঐতিহ্যবাহী জব্বারের বলি খেলার চূড়ান্ত পর্বের একটি মূহূর্তের ছবি এটি৷ ২০১৬ সালের বলকান ফটো অ্যাওয়ার্ড-এর ‘স্পোর্টস’ ক্যাটেগরিতে পুরস্কার জেতে ছবিটি৷

মরিচ শুকানোর ছবি


চাতালে লাল মরিচ শুকানোর এ ছবিটি বগুড়ার সারিয়াকান্দিতে তোলা৷ এ ছবিও চেক প্রজাতন্ত্রের ওপেন এয়ার ফটো ফেস্টিভ্যালসহ বেশ কিছু আন্তর্জাতিক পুরুস্কার জিতেছে৷

সুখী পরিবার


চাঁপাইনবাবগঞ্জের নাচোলে তোলা আলপনা গ্রামের একটি পরিবারের এ ছবি তোলা হয় গত বছর৷ ২০১৭ সালে অ্যাকশন এইড বাংলাদেশ আয়োজিত ডিফরেন্ট কাইন্ড অব ম্যান প্রতিযোগিতায় পুরস্কার পায় ছবিটি৷

ফায়ার ফাইটার্স


ঢাকার বাড্ডা এলাকায় এক বস্তিতে আগুন নেভাতে ব্যস্ত দমকল কর্মীরা৷ ২০১৫ সালে তোলা হয় ছবিটি৷ এ ছবি ফটো জার্নালিজম ক্যাটাগরিতে বেশ কিছু পুরস্কার পায়৷ এর মধ্যে উল্লেখযোগ্য হলো, রাশিয়ার ‘মস্কো ফটোগ্রাফি অ্যাওয়ার্ড’-এ প্রথম পুরস্কার, ২১০৬-তে সারজাহ’র এক্সপোজার ইন্টারন্যাশনাল অ্যাওয়ার্ড ২০১৬-তে দ্বিতীয় পুরস্কার এবং ২০১৭-তে বুলগেরিয়ার ভৌবস ফটো অ্যাওয়ার্ডে প্রথম পুরস্কার৷

খাঁচাবন্দি


খাঁচায় বন্দি কবুতর, পাশের জানালা দিয়ে উঁকি মারা এক শিশু৷ তার জীবনও অনেকটাই খাঁচা বন্দি৷ নারায়ণগঞ্জ থেকে ২০১৫ সালে তোলা হয় ছবিটি৷ ২০১৭ সালে যুক্তরাষ্ট্রের ৩৭তম অ্যানুয়াল স্প্রিং ফটো কনটেস্টে পুরস্কৃত হয় ছবিটি৷

ফড়িং এবং শিশির


ফড়িংয়ের মাথায় শিশির বিন্দু৷ ২০১৬ সালে তুরস্কের একটি প্রতিযোগিতায় পুরস্কৃত হয় ছবিটি৷

জুম্মার নামাজ


বাংলাদেশের জাতীয় মসজিদ বায়তুল মোকাররমে জুম্মার নামাজের এ ছবিটি তোলা হয় ২০১৫ সালে৷ সৌদি আরবের আফান ইন্টারন্যাশনাল এক্সিবশন অব ফটোগ্রাফিতে পুরস্কার জেতে ছবিটি৷

একটি পরিবারের আনন্দ


হাজারো ভিড় ঠেলে ট্রেনে বসতে পারার আনন্দ সবার চোখে-মুখে৷ ঈদে এক পরিবারের বাড়ি ফেরার এ ছবিটি ঢাকার বিমানবন্দর রেলওয়ে স্টেশন থেকে তোলা হয় ২০১৫ সালে৷ এ বছরই প্যারিসের পিক্স-৩ প্রতিযোগিতায় দ্বিতীয় হয়েছে ছবিটি৷

আধিপত্যের লড়াই


ঢাকার চিড়িয়াখানায় তোলা দুটি চিত্রা হরিণের এই ছবিটি গ্রিসের গ্রিক ফটো সার্কিট ২০১৭-তে স্বর্ণ পদক পায়৷

একজন তানভীর রোহান


ঢাকায় জন্ম ও বেড়ে ওঠা তানভীর রোহানের৷ পৃথিবীতে ঘুরে ঘুরে সুন্দর সুন্দর মুহূর্তগুলো ক্যামেরাবন্দি করা তাঁর নেশা৷ আলোকচিত্রের মাধ্যমে পৃথিবীর বুকে ‘পজিটিভ বাংলাদেশ’কে তুলে ধরাই তাঁর অন্যতম লক্ষ্য৷ তাঁর তোলা ছবি এ পর্যন্ত অর্জন করেছে তিন শতাধিক আন্তর্জাতিক পুরস্কার৷ এছাড়া ছবির প্রদর্শনীও হয়েছে পঁয়তাল্লিশটিরও বেশি দেশে৷ সৌজন্যে : ডয়েচেভেলে