Home » অ্যাডভেনচার ট্রাভেল

অ্যাডভেনচার ট্রাভেল

বর্ষায় উন্মাতাল আলীকদমের দামতুয়া ঝরনা

বর্ষায় উন্মাতাল কলতানে মুখরিত হয়ে উঠেছে আলীকদম উপজেলার অসংখ্য ঝরনা ও জলপ্রপাত। এর মধ্যে উল্লেখযোগ্য হচ্ছে- দামতুয়া ঝরনা, ওয়াংপা ঝরনা, রূপমুহুরী ঝরনা ও নুনার ঝিরি ঝরনা। এসব ঝরনার হিমশীতল জলে সিক্ত হতে প্রতিনিয়ত আসছে দেশের নানা প্রান্ত থেকে ভ্রমণপিপাসুরা। সম্প্রতি আলীকদম উপজেলার নয় তরুনের অনুসন্ধানে পাওয়া ‘ওয়াংপা ঝরনা’ ও ‘দামতুয়া ঝরনা’কে নিয়ে আজকের আয়োজন। লিখেছেন মমতাজ উদ্দিন আহমদ। আলীকদম উপজেলার ...

বিস্তারিত »

সেতু যেন সাগরের বুকে বিশাল এক ড্রাগন!

:: এজাজ মাহমুদ :: ছয় লেনের প্রশস্ত সেতু-সড়ক। মাইলের পর মাইল। মধ্যম গতিতে চলছে বাস। যতই এগোচ্ছে রোমাঞ্চকর অনুভূতি আর বিস্ময় মিলেমিশে একাকার। সেই পারদ ছড়িয়ে পড়ছে আশপাশের সহযাত্রীদের মধ্যেও। সামনে, ডানে-বামে ঘুরছে সবার দৃষ্টি। অস্ফুট স্বরে ঝরে পড়ছে কারও কারও বিস্ময়—এত্ত বিশাল! রোমাঞ্চকর অনুভূতি হবেই না কেন? পুরো সড়ক-সেতুটি যে উত্তাল সাগরের ওপর। নদ-নদী, সমতল এমনকি দুর্গম পাহাড়ের ওপর ...

বিস্তারিত »

এই শীতে কাশ্মীর ভ্রমণ

:: পলাশ প্রধান :: সৌন্দর্যের লীলাভূমি ভূস্বর্গ কাশ্মীর সম্পর্কে জানা ও দেখার ইচ্ছা সেই স্কুল জীবন থেকে। বইয়ের পাতায় কাশ্মীরের দৃষ্টিনন্দন নৈসর্গিক নয়নাভিরাম শোভার বর্ণনা পড়ে মুগ্ধ হতাম আর মনে মনে স্বপ্ন দেখতাম আহ! যদি চোখে দেখতে পারতাম অপরূপ কাশ্মীর। ছোট বেলার সেই স্বপ্ন পূরণ হলো গত মাসে। কাশ্মীর অনেকগুলি নামে পরিচিত। যেমন- ঋষিভূমি, যোগীস্থান, শারদাপীঠ বা শারদাস্থান ইত্যাদি। তবে ...

বিস্তারিত »

সন্ধ্যার আলোয় পাতাল সুড়ঙ্গে

:: আবুল হোসেন আসাদ :: পাহাড়ের পর পাহাড়ের ছড়াছড়ি আর তার ভাজে খাগড়াছড়ি। খাগড়াছড়ি শহর থেকে আট কিলোমিটার পশ্চিমে মাটিরাংগা উপজেলার আলুটিলা পর্যটন কেন্দ্র- এ রয়েছে এক রহস্যময় গুহা বা সুড়ঙ্গ। মাতাই হাকর বা দেবগুহা নামে স্থানীয় অধিবাসীদের কাছে যার পরিচিতি সেটি এক রহস্যময় পাহাড়ি সুড়ঙ্গ। আলুটিলা সুড়ঙ্গ। নাম টিলা হলেও আলুটিলা কিন্ত মোটেও টিলা নয়। বরং আলুটিলা খাগড়াছড়ি জেলার ...

বিস্তারিত »

এক সাগর মেঘের দেশে

:: তরিকুল ইসলাম :: পাহাড়, মেঘের বাড়ি! মন তো ছুটে যাবেই। গিয়েছিলাম রাঙামাটির সাজেক ভ্যালিতে। কোথাও গেলে দল বেঁধেই যাই। এবারও ব্যতিক্রম হয়নি। কিন্তু এবার যাওয়াটা ছিল একটু ভিন্ন। দলের সবার সঙ্গে আগে সামনাসামনি কখনো দেখা হয়নি। ভার্চ্যুয়াল দুনিয়ায় পরিচয়। লোকে বলে, ভার্চ্যুয়াল জগতের মানুষ আর আসল মানুষ নাকি ভিন্ন দুই সত্তা। কেবল ফেসবুকের গ্রুপে সামান্য পরিচয় ভরসা করে পাহাড়ে ...

বিস্তারিত »

পর্বত, পানি ও বরফের অপার্থিব মানালি

:: কাজী মাহদী আমিন :: ভারতের উত্তরের হিমাচল প্রদেশ তার তুষারাবৃত পর্বতমালার জন্য বিশ্বখ্যাত। হিমালয়ের বরফগলা পানি এসে ভাস নদীর তীরে গড়ে তুলেছে হিমাচল প্রদেশের সবচাইতে জনপ্রিয় ডেস্টিনেশান মানালি, যা ভূপৃষ্ঠ থেকে দুই কিলোমিটার উঁচুতে অবস্থিত। অপার্থিব কিছু দৃশ্যের দেখা মিলবে মানালিতে। হিমশীতল এই অঞ্চলে টুরিস্টদের কমতি নেই এবং আজকাল বাংলাদেশ থেকেও সেখানে ভ্রমণ করা অনেক সহজ। অক্টোবর থেকে জানুয়ারি ...

বিস্তারিত »

বুলেট ট্রেনে ভেসে সাংহাই ছাড়িয়ে

:: সাব্বির আহমেদ :: গুয়াংজু ছেড়ে এবার সাংহাইয়ের পথে। সাংহাইয়ের ৩২ হাজার ফুট ওপরে রোদের ঝিলিক দেখা গেলেও নিচের পুরোটাই মেঘে ঢাকা। প্লেনের জানালা দিয়ে গুয়াংজু বিমানবন্দরের কর্মীদের গায়ে জাম্বু সাইজের আগাগোড়া মোড়ানো সব কাপড় দেখেই শীতের কম্পন শুরু। নেমে যাওয়ার পর কম্পন আরও বাড়লো। তবে কারও কাজ থামছে না। কত দ্রুত আর কত সহজ সবকিছু তার নমুনা দেখা শুরু ...

বিস্তারিত »

সুন্দরতম গ্রাম লোহ, সামনে চোখ ধাঁধানো মানাসলু

:: রিয়াসাদ সানভী :: অন্য রকম এক সকাল নামরুংয়ে। ট্রেকে প্রথমবারের মতো প্রায় হাত ছোঁয়া দূরত্বে বরফ চূড়া। প্রথম সূর্যের ছটা লেগেছে তার গায়ে। যদিও পাথুরে শরীরে শুভ্রতা অতটা নেই। হাড় কাঁপানো শীত। নিচে ফ্লিচের জ্যাকেট উপরে উইন্ড ব্রোকার চাপিয়ে নিলাম। কিন্তু খুলতে হলো আধঘণ্টার মধ্যেই। নামরুং ছাড়িয়ে কিছুদূর যেতেই শুরু হলো চড়াই। দূরপাহাড়ে লোহ গ্রামপ্রথমবারের মতো টের পেলাম আমরা ...

বিস্তারিত »

চালন্দা গিরিপথে একদিন

:: মিজানুর রহমান :: নয়নাভিরাম সৌন্দর্যের লীলাভূমি চট্টগ্রাম বিশ্ববিদ্যালয়। এক হাজার ৭৫৪ একর আয়তনের এই বিশ্ববিদ্যালয়ের অধিকাংশ এলাকাজুড়ে বনাঞ্চল। এখানে যেমন রয়েছে বৈচিত্র্যময় বন্যপ্রাণী, তেমনি রয়েছে উঁচু-নিচু পাহাড়। কখনো এসব পাহাড়ের কোলজুড়ে বয়ে গেছে পাহাড়ি ছড়া, কখনো বা উৎপন্ন হয়েছে ঝর্ণা ও গিরিপথ। এমনই এক অজানা গিরিপথের সন্ধান মিলেছে চট্টগ্রাম বিশ্ববিদ্যালয়ে। ২০১১ সালে জানাজানি হয় প্রকৃতির বিস্ময় ‘চালন্দা গিরিপথ’। বিশ্ববিদ্যালয়ের ...

বিস্তারিত »

ভ্রমণ তালিকা থেকে যেন বাদ না যায় সাজেক

:: মুহাম্মদ মোস্তাফিজুর রহমান :: মেঘের চাদরে মোড়ানো পাহাড়। সবুজ বৃক্ষরাজি ঢেকে আছে ধবধবে সাদা কুয়াশায়। বিশাল বিশাল গাছপালা। অজগর সাপের মতো আঁকাবাঁকা আর উঁচু-নিচু রাস্তা। ভোরসকালে সূর্যোদয়ের দৃশ্য কোনটা নেই সাজেকে? খাগড়াছড়ি শহর থেকে দীঘিনালা, তারপর বাঘাইহাট হয়ে সাজেক। পুরো রাস্তাটাই অপূর্ব। আশপাশের দৃশ্য বড় মনোরম। বেশির ভাগ সময় রাস্তাটাকে রোলার কোস্টারই মনে হয়। সবুজে মোড়ানো প্রকৃতির মাঝে আঁকাবাঁকা ...

বিস্তারিত »