Home » অ্যাডভেনচার ট্রাভেল (page 5)

অ্যাডভেনচার ট্রাভেল

ঈদের বন্ধে শিলং-চেরাপুঞ্জি

কবিগুরু রবীন্দ্র্রনাথ ঠাকুর বলেছিলেন, ‘দেখা হয় নাই চক্ষু মেলিয়া, ঘর হতে শুধু দুই পা ফেলিয়া, একটি ধানের শীষের উপর একটি শিশির বিন্দু…।’ সিলেট থেকে শিলং আর চেরাপুঞ্জি ঘুরতে যাওয়ার বেলায় সম্ভবত কবিগুরুর এ কথাটি একেবারেই সত্যি। সিলেট থেকে মাত্র তিন ঘণ্টা দূরত্বের পথ শিলং। ছোটবেলায় জাফলংয়ে যখন ঘুরতে যেতাম তখন দেখতাম দুটি পাহাড়ের মিলন ঘটিয়েছে একটি সুন্দর ব্রিজ। মা-বাবা দেখিয়ে ...

বিস্তারিত »

জল-পাথরের স্বর্গ বিছানাকান্দি

প্রকৃতির অপার মায়ায় বিছানো জল-পাথরের মেলা। পাহাড়ের পাদদেশে অবস্থিত এ জায়গাটি বেশ বিস্ময় আর রোমাঞ্চকর। ভরা বর্ষায় পুরো বিছানা সাজে মেঘ-বাদলের জলের খেলায়। নিরিবিলিতে কয়েক দিন কাটিয়ে আসার জন্য আদর্শ। বিছানাকান্দিতে যেতে নরম সবুজের চাদরে ঢাকা পাহাড়ি পথ পাড়ি দিতে হবে। মেঘালয়ের বুক চিরে আসা ঝরনার হিম-শীতল জল ভ্রমণপ্রিয় মানুষের মনে এনে দেয় প্রশান্তি। হিম জল পাথরের সারি আর আশপাশের ...

বিস্তারিত »

পাসপোর্ট-ভিসা ছাড়াই ঘুরে আসুন ‘দার্জিলিং’!

পপেন ত্রিপুরা শিরোনাম দেখে আশ্চর্য লাগছে? আপনার আশ্চর্য লাগলেও লাগতে পারে, কিন্তু এটাই সত্যি! যাঁরা দার্জিলিংয়ের নাম শুনেছেন, বিবরণ শুনেছেন, কিন্তু যাননি। দার্জিলিং বিবরণে প্রকৃতির অপরূপ সৌন্দর্যের কথা শুনে দেখার ব্যাকুলতায় এরই মধ্যে আপনার মন আনচান হয়ে গেছে নিশ্চয়? এখন তো আরো ব্যাকুলতা বেড়ে গেল, তাই না? তাহলে দেরি কেন, চলুন ঘুরে আসি স্বপ্নের দার্জিলিংয়ে। কথা দিচ্ছি, কোনো পাসপোর্ট-ভিসা লাগবে ...

বিস্তারিত »

উৎসবে, অবসরে, পাহাড়ের প্রান্তে

পপেন ত্রিপুরা ঈদসহ যে কোনো উৎসবের ছুটিতে অথবা অলস অবসরে পোড়ামাটির যান্ত্রিক শহরে বসে না থেকে ঘুরে আসতে পারেন পাহাড়ের বন-বনানীর প্রান্তরে। পার্বত্য চট্টগ্রামের পাহাড়-পর্বত ঘুরে প্রকৃতির ছোঁয়ায় নিজেকে সতেজ করতে পারেন ক্ষণিকের জন্য হলেও। এই তিন পাহাড়ের আকাশে এখনো বিশুদ্ধ বায়ু বয়ে চলেছে। অন্য কোথাও নয়, একমাত্র পার্বত্য চট্টগ্রামের প্রাকৃতিক দর্শনীয় স্থান ঘুরে মনের তৃপ্তি মেটাতে পারবেন, এ বিষয়ে ...

বিস্তারিত »

পানছড়ির অরণ্য কুটির

সমির মল্লিক খাগড়াছড়ি শহর ছেড়ে অরণ্য কুটিরের দূরত্ব প্রায় ২৫ কিলোমিটার। সড়ক পথেই একমাত্র যাতায়াত ব্যবস্থা। খাগড়াছড়ি শহর ছেড়ে পানছড়ির পথে যে হয় জিপে চড়ে। তবে পাহাড়ের এই পথে নেই কোনো বিপত্তি। পুরোটা পথ সমতলে উপর বয়ে সোজা পাহাড়ি রাস্তা। দুপাশের সবুজ ধানক্ষেতের উপর বয়ে যাওয়া নরম সুতার রেখার মতো বয়ে গেছে কালো-পিচ ঢালা পথ। যেতে যেতে চোখে পড়বে অচেনা ...

বিস্তারিত »

মেঘে ঢাকা সাজেক

রাঙামাটির অনেকটা অংশই দেখা যায় সাজেক ভ্যালি থেকে। বাঘাইছড়ি উপজেলা থেকে ৩০ কিলোমিটার দূরের সাজেকের পুরোটাই পাহাড়ে মোড়ানো পথ। ভৌগোলিক অবস্থান রাঙামাটিতে হলেও যাতায়াতের সহজ পথ খাগড়াছড়ি হয়ে। সাজেকের পাহাড়ে মেঘেদের মেলা বসে। পাহাড়ের মেঘের স্পর্শে হারিয়ে যেতে ইচ্ছা করে। মেঘে ঢাকা সাজেকের অপরূপ প্রকৃতি সবার মন জয় করে নেয়। যেভাবে যাবেন প্রথমে যেতে হবে খাগড়াছড়ি অথবা দিঘীনালা। রাজধানী থেকে ...

বিস্তারিত »

বৃষ্টিভেজা চেরাপুঞ্জি

মুহাম্মদ মোস্তাফিজুর রহমান ভারতের মেঘালয়ের চেরাপুঞ্জির বৃষ্টিভেজা রূপ দেখতে হলে সেখানে যেতে হবে ভরা বর্ষায়। পাইনগাছ শোভিত অনুচ্চ পাহাড়শ্রেণির ভিতর দিয়ে যাওয়ার সময় চোখে পড়বে ছোট ছোট গ্রাম, খণ্ড খণ্ড কৃষিজমি আর ফলের বাগান। এছাড়া দেখা যাবে পাথর এবং কয়লার খোলোমুখ খনি। শিলং থেকে ৫৬ কিলোমিটার দূরবর্তী চেরাপুঞ্জি (উচ্চতা ৪,২৬৭ ফুট) যাওয়ার পথেই খাসি পাহাড়ের নয়নভিরাম শোভা দেখে মন ভরে যাবে। শিলং ...

বিস্তারিত »

অপরূপ লামা-আলীকদম

এস.এম ইসমাইল হাসান ইংরেজি ২০১৬ শুরু। ভাবছেন, ইট ক্রংকিটের খাঁচায় ঘেরা যান্ত্রিক এই নগরী ছেড়ে কোনো এক প্রাকৃতিক পরিবেশ থেকে বেড়িয়ে আসা দরকার। তাতে ছেলেমেয়েদের নগর জীবনের একঘেয়েমির কিছুটা অবসান হবে। রাঙামাটির ঝুলন্ত ব্রিজ-পাহাড়, বান্দরবানের কেওক্রাডং, তাজিংডং, চিস্বুক পাহাড়, স্বর্ণ মন্দির, নীলগীরি-নীলাচল, বগা লেক, মেঘলা বা কক্সবাজারের সমুদ্র সৈকত-ইনানী। নতুন উদ্যমে পর্যটনের দ্বার খুলে দিয়েছে বান্দরবানের আলীকদম-লামা। যেখানে রয়েছে সাগর, ...

বিস্তারিত »

হাওর দ্বীপ অষ্টগ্রাম

মাহমুদ হাসান খান আর মাত্র কদিন। এরপরই শুরু হচ্ছে বর্ষাকাল। আমরা সাধারণত বর্ষাকালকে বেড়ানোর জন্য উপযুক্ত মনে করি না। তবে বর্ষাকালও কিন্তু বেড়ানোর জন্য উপযুক্ত একটি ঋতু, যদি আপনি সঠিক লোকেশন খুঁজে নিতে পারেন। এমনি একটি স্থান হলো কিশোরগঞ্জের অষ্টগ্রাম। অষ্টগ্রাম উপজেলা হাওরবেষ্টিত যোগাযোগবিচ্ছিন্ন একটি উপজেলা। এর চারদিকেই পানি। এমনকি শীতের সময়েও এখানে যেতে হলে নৌপথের সাহায্য নিতে হয়। এমন ...

বিস্তারিত »

ক্যাম্পাসের ভেতরে অ্যাডভেঞ্চার!

শাহাদাত হোসেন এখানে প্রকৃতি তার রূপের পসরা সাজিয়ে অপেক্ষায় আছে শিক্ষার্থীদের জন্য। শাটল ট্রেনে চড়ে শহর থেকে প্রায় ২২ কিলোমিটার দূরত্ব পাড়ি দিয়ে তবেই দেখা মিলবে সেই সৌন্দর্যের। বলছি সুবিশাল জায়গাজুড়ে অবস্থিত সবুজ পাহাড়ে ঘেরা চট্টগ্রাম বিশ্ববিদ্যালয়ের কথা। ক্যাম্পাসটা যেসব শিক্ষার্থীদের কাছে ‘ঘরের’ মতো, কত যে গল্প জমা আছে তাঁদের ঝুলিতে! শিক্ষার্থীদের আড্ডায় বাইরের কেউ বসলে সব কথা হয়তো বুঝবেনও ...

বিস্তারিত »