Home » ভ্রমণ » বাংলাদেশ (page 10)

বাংলাদেশ

দক্ষিণ বাংলার জলের স্বর্গ রাজ্য

মাহমুদ হাসান খান যাঁরা থাইল্যান্ডের ফ্লোটিং মার্কেট নিয়ে আগ্রহ দেখান, যাঁরা কেরালার ব্যাকওয়াটারের ছবি দেখে হা-পিত্যেস করেন তাঁরা দেখে আসুন বরিশাল আর পিরোজপুরের জলের এক স্বর্গ রাজ্য। বলছিলাম বরিশাল-পিরোজপুরের-ঝালকাঠির নদী আর গ্রামের ভেতর বয়ে যাওয়া খালগুলোর কথা। ধান-নদী-খাল এই তিনে বরিশাল- এ কথা তো অনেকেই জানে। কিন্তু অনেকেই জানেন না এ নদী-খালের মধ্যে কী অপরিসীম স্বর্গীয় সৌন্দর্য লুকিয়ে আছে। বরিশালে ...

বিস্তারিত »

ময়মনসিংহের পথে প্রান্তরে

মাহমুদ হাসান খান ময়মনসিংহে রয়েছে দেখার মতো নানা কিছু। তাই একটু সময় ও সুযোগ পেলে একবার ঘুরে আসতে পারেন ঢাকার খুব কাছের এ জেলায়। চার লেন রাস্তার কাজ প্রায় শেষের দিকে আর তাই যাতায়াতের ভোগান্তিও নেই। খুব সকালের বাসে উঠতে পারলে মাত্র আড়াই ঘণ্টায় পৌঁছে যাবেন ময়মনসিংহ।  তাই আসুন ময়মনসিংহ জেলা সম্পর্কে একটু চোখ বুলিয়ে নিই। বাংলাদেশের প্রাচীন জেলাগুলোর মধ্যে ...

বিস্তারিত »

ক্যাম্পাসের ভেতরে অ্যাডভেঞ্চার!

শাহাদাত হোসেন এখানে প্রকৃতি তার রূপের পসরা সাজিয়ে অপেক্ষায় আছে শিক্ষার্থীদের জন্য। শাটল ট্রেনে চড়ে শহর থেকে প্রায় ২২ কিলোমিটার দূরত্ব পাড়ি দিয়ে তবেই দেখা মিলবে সেই সৌন্দর্যের। বলছি সুবিশাল জায়গাজুড়ে অবস্থিত সবুজ পাহাড়ে ঘেরা চট্টগ্রাম বিশ্ববিদ্যালয়ের কথা। ক্যাম্পাসটা যেসব শিক্ষার্থীদের কাছে ‘ঘরের’ মতো, কত যে গল্প জমা আছে তাঁদের ঝুলিতে! শিক্ষার্থীদের আড্ডায় বাইরের কেউ বসলে সব কথা হয়তো বুঝবেনও ...

বিস্তারিত »

মন কাড়ে মধুপুর গড়ের শালবন

সালাহ উদ্দিন মাহমুদ বাংলাদেশে ভ্রমণের অনেক স্থান থাকলেও টাঙ্গাইল জেলার মধুপুর গড়ের শালবন একটি ঐতিহাসিক স্থান। বিশেষ করে মে মাসে শালের জীর্ণ পাতা ঝরে নতুন পাতায় সুশোভিত হয়। চারিদিকে শুধু সবুজের সমারোহ ও বনের অভ্যন্তরে গজিয়ে ওঠা বিভিন্ন প্রজাতির চারা ও লতা-গুল্ম মন ভরিয়ে দেয়। তখন বনের মধ্যে এখানে-সেখানে থাকে বেগুনি রঙের জারুল গাছের মনকাড়া ফুলের বাহার। তবে জুন মাস ...

বিস্তারিত »

নওগাঁর সোমপুর বৌদ্ধ বিহার

মুহাম্মাদ আসাদুল্লাহ ভাবতে পারেন নওগাঁয় দেখার মতো কী আছে? হঠাৎ মনে পড়ে যেতে পারে আপনার স্কুলের কথা। কেননা আপনি স্কুলে পড়েছেন ‘সোমপুর বৌদ্ধবিহার’। মন ভরে দেখার মতো বাংলাদেশে যতগুলো ঐতিহাসিক নিদর্শন রয়েছে, সোমপুর বিহার তার মধ্যে অন্যতম। এমন দর্শনীয় স্থান না দেখে এত কাছ থেকে ঘুরে যাবেন তা কি হয়? তাই বৌদ্ধবিহার দেখার প্লান করতে করতে আপনি সোমপুর বিহারসহ নওগাঁর ...

বিস্তারিত »

ঝুম পূর্ণিমা দ্বীপ নিঝুম

রাকিব কিশোর ফাল্গুনী পূর্ণিমা রাত ছিল তখন। সেই পূর্ণিমার আলোয় ভেসে যেতে উতলা হয়েছিল আমার মতো আরও ২৬ জনের মন। কাজকে ছুটিতে পাঠিয়ে দিয়ে পূর্ণিমার চাঁদকে আপন করে ছুটে গিয়েছিলাম ঢাকা থেকে অনেক দূরে—জল-জঙ্গলের নিঝুম দ্বীপে। অ্যাডভেঞ্চার যাদের নিত্যসঙ্গী, তাদের দড়ি দিয়ে বেঁধেও ঘরে রাখা সম্ভব না। এই যাত্রার শুরুটাই হয়েছে লঞ্চ ধরার অ্যাডভেঞ্চার দিয়ে। যে লঞ্চ ছাড়ার কথা ঠিক ...

বিস্তারিত »

এই আমাদের সোনার চর

ফারুখ আহমেদ সময় বেলা একটা। আমরা তিনজন দাঁড়িয়ে অর্ধচন্দ্রাকৃতির এক সমুদ্রসৈকতে। গোসল করার জন্য আদর্শ জায়গা। কিন্তু আমাদের ভাবনার জগৎজুড়ে আছে সমুদ্রসৈকত আর তার চারপাশের পরিবেশ। সমুদ্রসৈকতের পেছনে ঝাউগাছের সারি, ঢেউয়ের উথালপাতাল, অসংখ্য মাছ ধরার নৌকা, দূরে জেলেদের অস্থায়ী ছোট একটি গ্রাম মন কেড়ে নিয়েছে আমাদের। এমন জনমানবহীন সমুদ্রসৈকত দেখে ভেবে বসেছিলাম দ্বীপটির মালিক আমরা তিনজন। আমরা তিনজন হচ্ছি আমি, ...

বিস্তারিত »

গাঙচষার খোঁজে দমারচরে

গাজী মুনছুর আজিজ সাগরের কোলঘেঁষে মেঘনা নদীর মোহনায় দমারচরের অবস্থান। চরের কিছুটা অংশ জুড়ে ম্যানগ্রোভ বন। বাকিটা কাদা-বালু। নোয়াখালীর হাতিয়ার দক্ষিণে জাহাজমারা-মোক্তারিয়া চ্যানেলের পাশে এ চর। এর আগে একাধিকবার এসেছি এ চরে। একাধিক আসার কারণ চরের আকর্ষণ। আর আকর্ষণের কারণ- পাখি। বিপন্ন দেশি-গাঙচষাসহ নানা প্রজাতির পাখি এখানে দেখা যায়। মূলত বাংলাদেশে দেশী গাঙচষা পাখির একমাত্র আবাসস্থল এ চর। পাখি দেখতেই ...

বিস্তারিত »

তাজহাট জমিদারবাড়ী

তাজহাট জমিদারবাড়ী ইতিহাস-ঐতিহ্যের অন্যতম স্মারক। ঐতিহাসিক প্রাসাদটিকে ঘিরে রয়েছে অসংখ্য ইতিহাস। দেশের সুবিশাল ও অনন্য সুন্দর স্থাপনাগুলোর মধ্যে তাজহাট জমিদারবাড়ী অন্যতম। বর্তমানে জাদুঘর হিসেবে ব্যবহূত হচ্ছে। পর্যটকদের জন্য এটি আকর্ষণীয় স্থান। ঐতিহাসিক সংগ্রহশালার প্রাসাদটি ভ্রমণপ্রিয় মানুষকে মুগ্ধ করবে। বাংলাদেশজুড়েই ছড়িয়ে-ছিটিয়ে থাকা অসংখ্য প্রাকৃতিক ও ঐতিহাসিক দর্শনীয় স্থান রয়েছে। অপূর্ব স্থাপত্যিক নিদর্শন আর জমিদারবাড়ীর ঐতিহ্য আর সংস্কৃতি জড়িয়ে থাকা ইতিহাস সংবলিত ...

বিস্তারিত »

আলুটিলা গুহার রোমাঞ্চকর অভিজ্ঞতা

১০ টাকার একটি টিকিট, আর ১০ টাকায় একটি মশাল। মাত্র ২০ টাকা আপনাকে কিছুক্ষণের জন্য নিয়ে যাবে একেবারে আদিম যুগে। অন্ধকার গুহায় পাড়ি দিতে হবে উঁচু-নিচু পাথুরে পথ, নিচ দিয়ে বয়ে যাচ্ছে পাহাড়ি ঝরনা থেকে নেমে আসা হিমশীতল পানি। মাঝে মাঝে বাদুড় ছানা উড়ে যাচ্ছে মাথার উপর দিয়ে। এটি বিদেশি বা কৃত্রিম কোনো দৃশ্য নয়। টিকিটের সামান্য দাম দিয়ে বোঝানো ...

বিস্তারিত »