Home » ভ্রমণ » বাংলাদেশ (page 23)

বাংলাদেশ

স্মৃতিসৌধ দেখতে বাঁশতলায়

ফারুখ আহমেদ টিলার ওপর মাঠ, এমন দৃশ্য হয়। কিন্তু টিলার ওপর চোখ জুড়ানো স্মৃতিসৌধ? ঘুরে আসতে পারেন সুনামগঞ্জ জেলার দোয়ারাবাজার উপজেলার বাঁশতলা গ্রামে। শুধু স্মৃতিসৌধ নয়, এখানে আছে মুক্তিযুদ্ধে শহীদ ১৪ জন মুক্তিযোদ্ধার সমাধি। তিন দিকে মেঘালয় পর্বতমালা ঘিরে থাকা বাঁশতলা স্মৃতিসৌধ এক কথায় অসাধারণ। এখানে আরও পাবেন চেলাই খালের ওপর স্লুইসগেট ও টিলার ওপর জুমগাঁও। বাঁশতলা স্মৃতিসৌধ ইতিবৃত্ত ডাউক ...

বিস্তারিত »

সুন্দরী ও কেওড়ার গহীন জঙ্গলে

রকিবুল হক রকি সায়েদাবাদ পৌঁছলাম সন্ধ্যা ৬টায়। ঢাকায় যে রকম ট্রাফিক জ্যাম আশা করেছিলাম, তেমনটা হয়নি দেখে মনটা বেশ ভালো। যাক, যাত্রার আগে এরকম শুভ ইঙ্গিত পেলে মন তো ভালো লাগবেই। সঙ্গে আছেন প্রিয় বন্ধুপ্রতিম রিয়াজ ভাই। আমরা দু’জনে মিলে যাব সুন্দরবনে, রয়েল বেঙ্গল টাইগারের দেশে। তাই সব কাজের চাপ শেষ করে এই সায়েদাবাদে এসে বসে থাকা। আমাদের প্রাথমিক গন্তব্য ...

বিস্তারিত »

রত্নগর্ভা সোনাদিয়া দ্বীপ

মোহাম্মদ সিরাজুল হক সিরাজ মহেশখালীর অপার সম্ভাবনাময় সোনাদিয়া দ্বীপ। এই দ্বীপের নামকরণের সঠিক কোনো ঐতিহাসিক তথ্য না থাকলেও জনশ্রুতি রয়েছে, স্থানীয়দের কাছে সোনা সমতুল্য দামি পণ্য প্রচুর মৎস্যসম্পদ আহরিত হতো বলে এই দ্বীপ সোনার দ্বীপ তথা সোনাদিয়া বলে পরিচিতি লাভ করে। দ্বীপটি সোনাদিয়া হিসেবে বর্তমান প্রজন্মের কাছে এবং পাঠ্যবইয়ে স্থান পেয়েছে। পর্যটনের জন্য সম্ভাবনাময় সোনাদিয়া পরিকল্পিত উন্নয়নের অভাবে এখন মুখথুবড়ে ...

বিস্তারিত »

বাংলার দার্জিলিং সাজেক

জাকির হোসেন খাগড়াছড়ি সাজেক পাহাড়ের সঙ্গে নীল আকাশের গভীর মিতালী। ছন্নছাড়া মেঘগুলো যেন উড়ে এসে বসেছে পাহাড়ের কোলে। সকাল-সন্ধ্যা প্রায় সময়ই পাহাড়ে মেঘের খেলা সাজেকের সবচেয়ে বড় আকর্ষণ। যেদিকে চোখ যাবে, শুধু মেঘ আর রংয়ের খেলা। সর্বোচ্চ চূড়া থেকে নিচে দূরের গ্রামের দিকে তাকালে মনে হবে পটে আঁকা আধুনিক কোনো ছোট্ট শহর! সাম্প্রতিক সময়ে কল্পনাতীত পরিবর্তন ঘটেছে সাজেকের। নতুন অনেক ...

বিস্তারিত »

পান্না-সবুজ জলের লালাখাল

 শাহ্ দিদার আলম নবেল, সিলেট আকাশের গায়ে হেলান দিয়ে দাঁড়িয়ে আছে বিশাল পাহাড়। পাহাড়ের কোলে দোল খাচ্ছে মেঘরাশি। কোথাও কোথাও পাহাড়ের বুক চিরে নেমে এসেছে ফেনিল সফেদ ঝরনাধারা। সেই ঝরনাধারা মিশেছে স্বচ্ছ জলের নদীতে। জল-পাহাড় আর সমতলের এই অপূর্ব মিশেলের দেখা মেলে কেবল সিলেটেই। তাই সারা বছরই সিলেটের পর্যটন কেন্দ্রগুলো সরব থাকে পর্যটকদের পদচারণায়। শীত এলে বেড়ে যায় পর্যটকদের সংখ্যা। ...

বিস্তারিত »

হিমালয় কন্যা তেঁতুলিয়া

জাকির হোসেন কবির দেশের সর্ব উত্তরের জেলা পঞ্চগড়ের তেঁতুলিয়ায় পর্যটকরা আসতে শুরু করেছেন। প্রতিবছর শীত মৌসুমের শেষে এখানে পর্যটকদের ঢল নামে। এবার হরতাল ও অবরোধের কারণে পর্যটকদের উপস্থিতি খানিকটা কম। এসময় তুলনামূলকভাবে শীত কম থাকায় কেউ আসেন বেড়াতে আবার কেউবা আসেন পিকনিক উপলক্ষে। গত বছরও এ সময় প্রতিদিন ৫০ থেকে ৮০টি পিকনিকের গাড়ি তেঁতুলিয়ায় আসত। সারাদিন প্রকৃতির অপরূপ দৃশ্য উপভোগ ...

বিস্তারিত »

শেষ বিকেলের আলোয় বিবিচিনি শাহী মসজিদ

মুশফিক আরিফ বরগুনা দূর থেকে চোখে পড়ল ছোট্ট টিলার উপরে দাঁড়িয়ে এক গম্বুজ বিশিষ্ট মসজিদটি। গম্বুজ জড়িয়ে আছে শেষ বিকেলের সোনালী আলো। চারপাশে খেজুরসহ নানা ধরনের গাছ। সবুজের হাতছানিকে পাশ কাটিয়ে কংক্রিটের সিঁড়ি বেয়ে দ্রুত উঠলাম। ভেতরটা দেখতে তর সইছিল না। মসজিদের সামনের পাকা মেঝেতে বসতেই চারদিকে চোখ গেল। বাহ! চমৎকার পরিবেশ, মন জুড়িয়ে গেল নিমিষেই। এ হলো দক্ষিণাঞ্চলে মুঘল স্থাপত্যের ...

বিস্তারিত »

ঘুরে আসুন স্যার সৈয়দ শামসুল হুদার বাড়ি

ব্রাহ্মণবাড়িয়ার যেকজন ক্ষণজন্মা রাজনীতিবিদ উপমহাদেশে বিখ্যাত ও স্মরণীয় হয়ে আছেন তাদের মধ্যে উল্লেখযোগ্য নওয়াব স্যার সৈয়দ শামসুল হুদা। ইতিহাসের সাক্ষী হয়ে আছে উপমহাদেশের এই বিখ্যাত রাজনীতিবিদের বাড়িটি। প্রায় ২০০ বছরের পুরনো এই বাড়িটিকে দেখতে প্রতি বছরই আসেন দেশে বিদেশের বহু পর্যটক। তবে এলাকার বয়োজ্যেষ্ঠরা কেউ এই বাড়ির সঠিক ইতিহাস জনেন না। কেউ বলেন ১৫০ বছর, কেউবা ২০০ বছর, কেউ আবার ...

বিস্তারিত »

চখাচখির সনে চোখাচোখি

আবুল কালাম মুহম্মদ আজাদ রাজশাহী নৌকার ইঞ্জিন থামিয়ে দেন মাঝি। ইঞ্জিনের আওয়াজ মিলিয়ে যেতে সময় লাগে না। চারদিকে নিস্তরঙ্গ জলরাশি। একটা ছোট্ট ঢেউ পর্যন্ত নেই। হঠাৎ কানে এসে লাগে দূরে কোনো গল্পের আসর থেকে ভেসে আসা শত কণ্ঠের গুঞ্জন। অচেনা সব স্বর: আঙক, আঙক, আআখ, পক-পক-পক-পক…। বরকত বললেন, ‘গল্প করছে খয়রা চখাচখি।’ ১ মার্চ সকাল। আকাশে সূর্যের দেখা নেই। নৌকায় ...

বিস্তারিত »

আরেক বাংলাদেশের হাতছানি

আকবর হোসেন সোহাগ নোয়াখালী প্রিয় মাতৃভূমি বাংলাদেশের সর্বদক্ষিণে বঙ্গোপসাগরের বুকে জেগে ওঠা দ্বীপগুলো যেন আরেক বাংলাদেশ। এখানকার নিঝুম দ্বীপ, নলের চর, কেয়ারিং চর, জাহাজের চরসহ বেশ কয়েকটি নতুন দ্বীপ যেন এরই জানান দিচ্ছে। এর মধ্যে নিঝুম দ্বীপে গড়ে উঠেছে ৫০ হাজার লোকের বসতি ও বনায়ন। এখানকার হরিণগুলো রক্ষা করে প্রতি বছর প্রায় ২০ হাজার রপ্তানি করা সম্ভব। প্রতিটি হরিণের মূল্য ...

বিস্তারিত »