Home » ভ্রমণ (page 47)

ভ্রমণ

Singapore, Malaysia & Thailand @ 62,500/=

7 Days, Package Price per Person: 62,500/- Contact : 016 12 360 348, 019 711 00 711 =============================== Package Price inclusive of Dhaka to Singapore by Tiger Air. Transfer from Airport to Hotel. 1 Night Accommodation at Singapore on Twin Share Basis. Buffet Breakfast. Singapore to Kuala Lumpur by Bus. 3 Nights Accommodation at Kuala Lumpur on Twin Share Basis. ...

বিস্তারিত »

গেন্টিং হাইল্যান্ডস –সিটি অফ এন্টারটেইনমেন্ট !

১১ নভেম্বর ম্যানিলা থেকে উড়াল দিয়েছিলাম কুয়ালালামপুরের উদ্দেশ্যে। মালয়শিয়া এয়ারলাইন্সের ফ্লাইট, কুয়ালালামপুর থেকে ঢাকা। মাঝে কয়েক ঘন্টার বিরতি। আমার বন্ধু সেদিনই বাংলাদেশে চলে এসেছিল কিন্তু আমি কুয়ালালামপুর নেমে মালয়শিয়া ঢুকে পড়ি। দু’দিনের জন্য। সংক্ষিপ্ত ভ্রমণ, সুনির্দিষ্ট কর্মসূচী। গেন্টিং হাইল্যান্ড গমন, Ra.One সিনেমা দেখা আর কিছু কেনা কাটা করে বাংলাদেশ প্রত্যাবর্তন!: গেন্টিং হাইল্যান্ডস –সিটি অফ এন্টারটেইনমেন্ট ! কুয়ালালামপুর থেকে মাত্র ১ ...

বিস্তারিত »

চখাচখির সনে চোখাচোখি

আবুল কালাম মুহম্মদ আজাদ রাজশাহী নৌকার ইঞ্জিন থামিয়ে দেন মাঝি। ইঞ্জিনের আওয়াজ মিলিয়ে যেতে সময় লাগে না। চারদিকে নিস্তরঙ্গ জলরাশি। একটা ছোট্ট ঢেউ পর্যন্ত নেই। হঠাৎ কানে এসে লাগে দূরে কোনো গল্পের আসর থেকে ভেসে আসা শত কণ্ঠের গুঞ্জন। অচেনা সব স্বর: আঙক, আঙক, আআখ, পক-পক-পক-পক…। বরকত বললেন, ‘গল্প করছে খয়রা চখাচখি।’ ১ মার্চ সকাল। আকাশে সূর্যের দেখা নেই। নৌকায় ...

বিস্তারিত »

আরেক বাংলাদেশের হাতছানি

আকবর হোসেন সোহাগ নোয়াখালী প্রিয় মাতৃভূমি বাংলাদেশের সর্বদক্ষিণে বঙ্গোপসাগরের বুকে জেগে ওঠা দ্বীপগুলো যেন আরেক বাংলাদেশ। এখানকার নিঝুম দ্বীপ, নলের চর, কেয়ারিং চর, জাহাজের চরসহ বেশ কয়েকটি নতুন দ্বীপ যেন এরই জানান দিচ্ছে। এর মধ্যে নিঝুম দ্বীপে গড়ে উঠেছে ৫০ হাজার লোকের বসতি ও বনায়ন। এখানকার হরিণগুলো রক্ষা করে প্রতি বছর প্রায় ২০ হাজার রপ্তানি করা সম্ভব। প্রতিটি হরিণের মূল্য ...

বিস্তারিত »

মায়াবী কুয়াশা, মেঘের লুকোচুরি, গাছে-গাছে কমলালেবু : ওয়াহ্ জম্পুই!

কার্শিয়াং-কালিম্পং তো চেনা জায়গা। ছুটিতে একবার ঘুরেই আসুন না জম্পুই। সারা বছরই যাওয়া যায় সেখানে। শুধু পরিকল্পনা করে বেরিয়ে পড়লেই হল। কেন যাবেন: ত্রিপুরাতে জম্পুইয়ের অবস্থান। চারদিকে পাহাড়ের মেলা। অনেকে একে ‘ত্রিপুরার কার্শিয়াং’ বলে থাকেন। যদিও কার্শিয়াংয়ের মতো হাড়কাঁপানো ঠান্ডা পড়ে না জম্পুইয়ে। এখানকার ঠান্ডা আরামদায়ক, বেশ উপভোগ্য। বছরের যে কোনও সময় জম্পুই যাওয়া যায়। তবে শীতকালে জম্পুই পাহাড়ের রূপই ...

বিস্তারিত »

জেলেদের গ্রাম থেকে সিঙ্গাপুর রাষ্ট্র, কীভাবে?

৯১ বছর বয়সে মারা গেছেন সিঙ্গাপুর রাষ্ট্রটির প্রতিষ্ঠাতা লি কুয়ান ইউ। কিন্তু জীবদ্দশায় সিঙ্গাপুর বা এই বিশ্বের জন্য এমন কিছু করে গেছেন যার কারনে বিশ্ব ইতিহাসে সোনার অক্ষরে আজীবন লেখা থাকবে তাঁর নাম। এখন যে জায়গায় সিঙ্গাপুর, সেখানে একসময় ছিলো জেলেদের বাস। ১২০টি জেলে পরিবার বাস করতো এখানে। কিভাবে এমন একটি জায়গাকে সিঙ্গাপুরে রুপায়ন করেছিলেন লি কুয়ান? টাইম ম্যাগাজিনের সাবেক ...

বিস্তারিত »

নগর সভ্যতার অনন্য নিদর্শন উয়ারী বটেশ্বর

নগর সভ্যতার অনন্য নিদর্শন উয়ারী বটেশ্বর। আড়াই হাজার বছরের পুরনো এ সভ্যতার সন্ধান মিলে ১৯৩০’র দশকে। স্কুল শিক্ষক মোহাম্মদ হানিফ পাঠান উয়ারী বটেশ্বরকে জনসমক্ষে তুলে ধরার প্রায় ৭০ বছর পর এর খনন কাজ শুরু হয়েছিল ২০০০ সালে। খননকাজের নেতৃত্ব দেন জাহাঙ্গীরনগর বিশ্ববিদ্যালয়ের প্রত্নতত্ত্ব বিভাগের অধ্যাপক সুফি মোস্তাফিজুর রহমান। তার সাথে ছিলেন হানিফ পাঠানের ছেলে মুহাম্মদ হাবিবুল্লাহ পাঠান। নরসিংদী জেলার বেলাব ...

বিস্তারিত »

প্রাচীন স্থাপত্যের নিদর্শন আহসান মঞ্জিল

ঢাকার প্রাচীন স্থাপত্যের মধ্যে আহসান মঞ্জিল অন্যতম। আহসান মঞ্জিল বাংলাদেশের ইতিহাসকে করেছে সমৃদ্ধ। ঢাকার ইতিহাস ঐতিহ্যের নীরব সাক্ষী এই আহসান মঞ্জিল। লিখেছেন শওকত আলী রতন আহসান মঞ্জিল হলো ঢাকার নওয়াবদের আবাসিক প্রাসাদ এবং জমিদারির সদর কাচারি। ঢাকা মহানগরীর দক্ষিণাংশে বুড়িগঙ্গা নদীর উত্তর তীরে অবস্থিত আহসান মঞ্জিল। প্রাসাদটি নওয়াববাড়ি নামে পরিচিত। স্থানটি বর্তমানে ইসলামপুরের কুমারটুলী মহল্লা নামে অভিহিত। মোগল আমলে এখানে ...

বিস্তারিত »

ঢাকার কাছের বালয়াটি প্রাসাদ

মুহাম্মদ মোস্তাফিজুর রহমান দালানগুলো দাঁড়িয়ে আছে আগের মতোই। তবে চেহারাটা অনেক উজ্জ্বল হয়েছে। সীমানাপ্রাচীরেও লেগেছে রং। ভ্রমণপিপাসুরা আসছেন আগের চেয়ে বেশি। দালানগুলোর চূড়া মন কাড়ে আগতদের। বলছি মানিকগঞ্জের বালিয়াটি প্রাসাদের কথা। অনেকে এটিকে বালিয়াটির জমিদার বাড়িও বলেন। তবে বালিয়াটি প্রাসাদ নামেই এটি বেশি পরিচিত। ঊনিশ শতকের প্রথমার্ধে বালিয়াটির জমিদার গোবিন্দরাম প্রাসাদটি নির্মাণ করেন। সময়ের ব্যবধানে এখানের ভবনগুলো ধ্বংসের প্রহর গুনলেও ...

বিস্তারিত »

ভ্রমণ যখন দার্জিলিংয়ে

মুহাম্মদ মোস্তাফিজুর রহমান একবার ভাবুন, আপনি ছুটছেন পাহাড়ি আঁকাবাঁকা পথ ধরে। জিপের ভেতর দাঁত কামড়ে বসে আছেন। পাল্লা দিয়ে চলছেন মেঘের সাথে। মেঘগুলো কখনো জিপের এক পাশের জানালা দিয়ে ঢুকছে। আর বের হচ্ছে অন্য পাশ দিয়ে। আপনি ছুটছেন প্রায় সাত হাজার ফুট উচ্চতার এক শহরের উদ্দেশে। বলছি দার্জিলিংয়ের কথা। হিমালয়ের কোল ঘেঁষে দাঁড়িয়ে থাকা ছবির মতো সুন্দর স্বপ্নপুরী এই দার্জিলিং। ...

বিস্তারিত »